64 District

জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত ও দর্শনীয় স্থান

জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত?এই প্রশ্নটি বরাবর অনেকেই করে থাকেন। আমরা কে হয় হয়তো জানি আবার কে হয়ত জানিনা যে জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত। আজকের এই পোস্টটিতে আমরা জামালপুর সে জন্য বিখ্যাত ছাড়াও আরো কিছু বিষয় আমরা তুলে ধরব এই পোস্টটিতে জামালপুরের বিখ্যাত খাবার,জামালপুরের দর্শনীয় স্থান ও জামালপুর সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। পোস্টটি আপনার মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে শেষ পর্যন্ত। 

জামালপুর জেলা সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত তথ্য

জামালপুর বাংলাদেশের ৬৪ টি জেলার মধ্যে একটি জেলা। এই জেলাটি বর্তমানে ময়মনসিংহ বিভাগের মধ্যে অবস্থিত একটি জেলা। জামালপুর জেলার আয়তন ২,০৩১.৯৮ বর্গ কিলোমিটার। এই শহরটি মূলত পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদীর তীরে গড়ে উঠেছে। এছাড়া জামালপুর জেলাকে ভারত ও বাংলাদেশের পণ্য আমদানি রপ্তানির প্রধান কেন্দ্র বলা যায়। এই জেলাতে মূলত আপনি দেশের সব বড় বড় সার কারখানা দেখতে পাবেন। জামালপুর উপজেলায় রয়েছে ৭টি উপজেলা ও ৬৮ টি ইউনিয়ন। আসুন আমরা এবার জেনে নিই জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত এই সম্পর্কে…

জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত
জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত

জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত

জামালপুরে বুড়ির দোকান নামে  বা অনেকে বুড়ি মায়ের দোকান বলে থাকে। বুড়ির দোকানের ছানার পায়েস,ছানার পোলাও, পিঠালি বা মিল্লি,ক্ষির, রসমালাই ও ইত্যাদি মিষ্টান্ন জাতীয় খাবারের কারণে জামালপুর জেলা বিখ্যাত। তবে এই কারণে শেষ নয়, হস্তশিল্পের জন্যও জামালপুর জেলা বিখ্যাত। আপনি এই জেলাতে দেশের বড় বড় সার কারখানা দেখতে পাবেন। ভারত থেকে দ্রব্য আমদানি রপ্তানি করার জন্যও জামালপুর জেলা বিখ্যাত।

জামালপুরের বিখ্যাত খাবার
জামালপুরের বিখ্যাত খাবার

জামালপুরের বিখ্যাত খাবার

জামালপুর জেলার বিখ্যাত খাবার গুলো নিচে উপস্থাপন করা হলো:

  1. ছানার পায়েস
  2. রসমালাই
  3. ছানার পোলাও
  4. ক্ষির
  5. পিঠালি/মিল্লি
  6. খাজা
  7. প্যারা সন্দেশ
  8. চাল বিরন
  9. বেগুন দিয়ে কাচকি মাছ
  10. মালাই চা
  11. নাইল্লা পাতা
  12. ক্যানজাল
See also  বরিশাল জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত ও দর্শনীয় স্থান

এ সকল খাবার ছাড়াও জামালপুরের আরো কিছু বিখ্যাত খাবার ও আঞ্চলিক খাবার  রয়েছে যা আপনি এই জেলায় ভ্রমণ কালে এই সকল খাবারের স্বাদ গ্রহণ করতে পারবেন। জামালপুর জেলার মানুষেরা খুব আত্মীয়তা পরায়ন হয়ে থাকে। জামালপুরের বিখ্যাত খাবার সম্পর্কিত জানলেন তাহলে এবার জেনে নেয়া যাক জামালপুরের বিখ্যাত স্থান বা জামালপুরের দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে…

জামালপুর জেলার দর্শনীয় স্থানসমূহ

জামালপুর জেলার দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে নিচে অবস্থান করা হলো:

  • দেওয়ানগঞ্জের সুগার মিলস
  • গান্ধী আশ্রম
  • ঝিনাই নদীর উৎসমুখ, জঙ্গলদি
  • দয়াময়ী মন্দির
  • লাউচাপড়া পিকনিক স্পট, বকশীগঞ্জ
  • মালঞ্চ মসজিদ, মেলান্দহ
  • দেওয়ানগঞ্জের সুগার মিলস
  • যমুনা সার কারখানা
  • দয়াময়ী মন্দির
  • শাহ জামালের মাজার
  • মালঞ্চ মসজিদ
  • লাউচাপড়া পিকনিক স্পট
  • লাউচাপড়া পাহাড়িকা বিনোদন কেন্দ্র
  • লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক

এ ছাড়া জামালপুরে আপনি ভ্রমণকালে আরো দর্শনীয় স্থান দেখতে পাবেন। তাহলে আর দেরি কেন আসুন ভ্রমণ করুন জামালপুর জেলার দর্শনীয় স্থান সমূহ। 

সচরাচর জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন (FAQ)

প্রশ্ন: জামালপুর জেলার মোট আয়তন কত? 

উওর: ২,০৩১.৯৮ বর্গ কিলোমিটার হলো জামালপুর জেলার মোট আয়তন। 

প্রশ্ন: ঢাকা থেকে জামালপুর কত কিলোমিটার?

উওর: জামালপুর জেলা থেকে ঢাকা বিভাগের দূরত্ব হলো ১৮৭  কিলোমিটার। 

প্রশ্ন: জামালপুর জেলা কোন বিভাগের অন্তর্গত  বা জামালপুর কোন বিভাগে অবস্থিত? 

উওর: ময়মনসিংহ বিভাগের অন্তর্গত একটি জেলা হচ্ছে জামালপুর জেলা। 

প্রশ্ন: ময়মনসিংহ বিভাগীয় শহর থেকে জামালপুর জেলার দ্রুরুত্ব কত? 

উত্তর: প্রায় ৬৫ কিলোমিটার। 

প্রশ্ন: জামালপুর জেলার পূর্ব নাম কী? 

উওর: গঞ্জের হাট / সন্ন্যাসীগঞ্জ / সিংহজানী। 

প্রশ্ন: জামালপুর জেলাতে কয়টি গ্রাম রয়েছে? 

উওর: ১৩৪৬ টি গ্রাম রয়েছে জামালপুর জেলাতে। 

প্রশ্ন: মুক্তিযুদ্ধে জামালপুর কত নম্বর সেক্টরে ছিল?

উওর: সেক্টর নং ১১

প্রশ্ন: জামালপুর জেলার ওয়েবসাইট ঠিকানা লিংক?

উওর: https://www.jamalpur.gov.bd/

শেষ কথা

আশা করি আমরা আপনাকে, জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত ও দর্শনীয় স্থান সম্পর্কে জানতে পেরেছি। এসকল ধরনের লেখা পেতে সর্বদা আমাদের সাথে থাকুন। জামালপুর জেলা ও জামালপুর কিসের জন্য বিখ্যাত সম্পর্কে আপনি যদি কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি কমেন্ট বক্সে কমেন্ট করে জানাতে পারেন।

See also  সুনামগঞ্জ কিসের জন্য বিখ্যাত ও দর্শনীয় স্থান

আরো  পড়তে পারেন: 

(প্রতিনিয়ত নতুন নতুন আপডেট পেতে আমাদের গুগল নিউজ এ অনুসরণ করুন)

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button