Tech News

vivo Y200 এর দাম বাংলাদেশে কত। চার্জ হবে মাএ ৫০ মিনিটে

vivo Y200 এর দাম কত বাংলাদেশে? সম্প্রতি বাজারে এসেছে নতুন একটি মডেলের স্মার্টফোন। এই স্মার্টফোনটি vivo মোবাইল কোম্পানি অফিশিয়ালি তাদের বাজারে নিয়ে এসেছে গত ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে। বর্তমানে মোবাইলটি অফিশিয়ালি পাওয়া যাচ্ছে বাজারে আর এই মডেলটির নাম হলো vivo Y200। আসুন আমরা বিস্তারিত জেনে নি এই মোবাইলটি সম্পর্কে মোবাইলটি কেমন হবে আপনার জন্য কত টাকা vivo Y200 এই মডেলের স্মার্টফোনটির।

vivo Y200 এর দাম বাংলাদেশে কত

বর্তমানে ৮/১২৮ জিবি vivo Y200 এই মোবাইলটির দাম অফিশিয়াল ভাবে কিনতে আপনার ৩২,০০০ টাকা খরচ করতে হবে। তবে সময়ের সাথে এই মোবাইলটির দাম পরিবর্তন হতে পারে।

সুবিধা

  • ৬.৬৭ ইঞ্চির বড় ডিস্পলে ও AMOLED ডিসপ্লে
  • 120Hz রিফ্রেশ রেট ও 800 nits উজ্জ্বলতা রয়েছে ডিস্পলেতে
  • 5G সুবিধা সমর্থন করে
  • লেটেস্ট অপারেটিং সিস্টেম ও গেমিং প্রেসসর রয়েছে
  • পিছনে ৬৪+২ মেগাপিক্সেল এর ক্যামেরা ও সামনে ১৬ মেগাপিক্সেল ক্যমেরা
  • 3.5 mm Audio Jack রয়েছে
  • 44W ফাস্ট চার্জিং
  • IP54, dust and splash resistant সুবিধা রয়েছে

অসুবিধা

  • NFC সমর্থন করে না
  • FM Radio সুবিধা সম্পর্কে জানা যায়নি
  • Infrared port নেই
  • অতিরিক্ত মেমরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে না
  • 4500 mAh ব্যাটারি

পারফরমেন্স

যদি মোবাইলটির পারফরমেন্সের কথা বলতে হয় তাহলে মোবাইলটি পারফরমেন্সে যথেষ্ট খুব ভালো বলা যায়। গেমিং পারফরমেন্স খুব ভালো পাওয়া যায় এই স্মার্টফোনটিতে। এই ফোনটিতে চিপসেট হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Qualcomm SM4375 Snapdragon 4 Gen 1 এর 6 ন্যানোমিটার চিপসেট। প্রসেসর হিসেবে এই ফোনটিতে আপনি পাচ্ছেন Octa-core 2.0 GHz এর CPU। GPU হিসেবে পাবেন Adreno 619। ফোনটিতে আপনি ১২৮ জিবি ইন্টারন্যাল স্টোরেজ পেয়ে যাবেন ও ফোনটিতে রয়েছে ৮ জিবি RAM। মোবাইলটিতে RAM বেশি হওয়ার কারণে গেমিং পারফরমেন্স

নতুন মোবাইলের দাম জানুন

ডিস্পলে

vivo Y200 মোবাইলটিতে ৬.৬৭ ইঞ্চির ডিসপ্লে বড় মোবাইল ব্যবহারকারীদের কাছে বেশ ভালো লাগবে ।মোবাইলটিতে আপনি AMOLED এর ডিস্পলে পাবেন। 120Hz এর রিফ্রেশ রেট থাকার কারনে ফোনটি ব্যবহার কারীদের কাছে স্মুথলি ব্যবহার করার পারফরম্যান্স প্রদান করছেও ও ব্যবহারকারীদের পারফরম্যান্সকে আরো উন্নত করছে। 800 nits এর উজ্জ্বলতা বাইরে রোদের মধ্যে মোবাইলটি ব্যবহার করার সুবিধা দিচ্ছে। হ্যাঁ, ডিস্পলেতে মাল্টিটাস্কিং রয়েছে।

See also  samsung galaxy a05 এবার দুর্দান্ত গেমিং পারফরমেন্সে
vivo Y200 এর দাম বাংলাদেশে
vivo Y200 এর দাম বাংলাদেশে

নেটওয়ার্ক ও কানেক্টিভিটি

এই মোবাইলটি ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক সমর্থন করে। তবে আপনি আপনার প্রয়োজনের সুবিধার্থে থ্রিজি কিংবা আপটুজি বা ফোরজি তে রুপান্তরিত করতে পারবেন। মোবাইল নেটওয়ার্ক স্পিড খুব ভালো। আপনি এই মোবাইলটিতে দুইটি ন্যানো আকৃতির সিম ব্যবহার করতে পারবেন। যারা ভাবছেন বড় সিম ব্যবহার করবেন, আসলে এই মোবাইলটিতে কেবলমাত্র ২টি ন্যানো আকৃতির সিম ব্যবহার করা যাবে।

ফোনটির কানেক্টিভিটির কথা বললে কানেক্টিভিটি খুব ভালো বলা যায়। তবে এই বাজেটে আপনি এই ফোনটিতে NFC সুবিধা পাচ্ছেন না। তবে এই মোবাইলটিতে এফএম রেডিও আছে কিনা সেটি জানা যায়নি। Infrared port আপনি এই ফোনটিতে পাবেন না।

সর্বশেষ প্রকাশিত মোবাইলের দাম জানুন

ক্যামেরা

যদি এই মোবাইলটির ক্যামেরার মানের কথা বলা হয় তাহলে এই মোবাইলটির ক্যামেরার যথেষ্ট ভালো বলা যায়। আপনি পিছনের ক্যামেরায় পাচ্ছেন ডুয়েল ক্যামেরা সেটআপ ৬৪+২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। মোবাইলটির পিছনের ক্যামেরার বিভিন্ন ফিচার আপনাকে মুগ্ধ করব।

আপনি এই মোবাইলটির সামনের ক্যামেরা পাবেন 16 মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা। সামনের ক্যামেরাতেও বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ ফিচার রয়েছে।

সামনের ও পিছনের ক্যামেরা তথা উভয় ক্যামেরা দিয়ে 1080p@30fps এর ভিডিও ধারণ করতে পারবেন।

মোবাইলের বডি

এই মোবাইলটির ওজন মাত্র ১৯০ গ্রাম। বলা যায় এই ফোনটি বেশ হালকা একটি মোবাইল। মোবাইলটি বর্তমান বাজারে তিনটি কালারে বা তিনটি রঙে পাওয়া যাচ্ছে। তিনটি রং হলো: মেটাল ব্ল্যাক, টোয়াইলাইট গোল্ড এবং প্যাসিফিক ব্লু। মোবাইলটির Body Dimensions হলো 162.4 x 74.9 x 7.7 mm। Glass front, plastic frame, glass back ব্যবহার করা হয়েছে Build Material হিসেবে।

সেন্সর

মোবাইলটিতে প্রয়োজনীয় সকল ধরনের সেন্সর রয়েছে। নিন্মে এই সেন্সরগুলোর নাম উপস্থাপন করা হলো একটি তালিকায়

  • Fingerprint
  • Gyroscope Sensor
  • Light Sensor
  • Compass Sensor
  • Accelerometer
  • Proximity Sensor

সাউন্ড

মোবাইলটির সাউন্ড কোয়ালিটি বলতে গেলে বেশ ভালো বলা যায়। মোবাইলটিতে Loudspeaker ও 3.5 mm Audio Jack ব্যবহার করার সুবিধা রয়েছে।

See also  বাজেটের সেরা স্মার্টফোন Honor X5 Plus।। Best Smartphone in mid-range price

ব্যাটারি

যদি এই মোবাইলটির ব্যাটারি কথা বলতে হয় তাহলে আমরা আশা করেছিলাম অন্তত ৫০০০ এম্পিয়ারের একটি আমরা ব্যাটারি পাবো কিন্তু আমরা এই ফোনটিতে পারছি ৪৫০০ এম্পিয়ার এর একটি ব্যাটারি। তবে যদি বলা হয় চার্জ কতটুকু সময় যায় তাহলে এই ফোনটিতে চার্জ অনেক সময় যায়। যেমন ধরুন যারা হেব্বি গেমিং করেন ৫-৬ ঘন্টা অনায়াসে যাবে ও সাধারণ ব্যবহারীদের তো ১ বা দের দিন যাবে। মোবাইলটিতে 44W এর ফাস্ট চার্জিং সুবিধা রয়েছে। একটি তথ্য থেকে জানা যায়, এই ফোনটি চার্জ হতে প্রায় ৫০ মিনিট বা 45 মিনিটের মতো সময় লাগতে পারে।

vivo Y200 মেবাইলটি কাদের জন্য ভালো

এই ফোনটি মূলত, যদি বলা হয় সবার জন্য ভালো হবে। তবে কি তারা গেমিং করেন এবং ফটোগ্রাফি করতে চান তাদেরও জন্য এই ফোনটি বেশ ভালো হবে। যে কোন মোবাইল ব্যবহারকারীদের কাছে এই ফোনটি বেশ ভালো হবে এটি বলা যায়।

FAQ

vivo Y200তে কত জিবি RAM ও ROM রয়েছে?

৮ জিবি RAM ও ১২৮ জিবি ROM রয়েছে

মোবাইলটির ডিস্পলের আকার কত?

৬.৬৭ ইঞ্চি

মোবাইলটিতে কত W এর ফাস্ট চার্জিং সুবিধা রয়েছে?

44W এর ফাস্ট চার্জিং সুবিধা।

শেষ কথা

আশা করি আমরা আপনাকে, vivo Y200 এর দাম বাংলাদেশে কত ও মোবাইলটি কেমন হবে আপনার জন্য এটি জানাতে পেরেছি। আপনার যদি এই মোবাইলটি কিনতে চান তাহলে কিনতে পারেন।

আমাদের অনুসরণ করতে পারেন

গুগল নিউজফেসবুক পেজ এ আমাদের অনুসরণ করে নতুন পোস্টের আপডেট পেতে পারেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button